সর্বজনীন আচরণবিধি/প্রাজিপ্র

From Meta, a Wikimedia project coordination wiki
Jump to navigation Jump to search
This page is a translated version of the page Universal Code of Conduct/FAQ and the translation is 90% complete.
Outdated translations are marked like this.
Other languages:
Bahasa Indonesia • ‎Bahasa Melayu • ‎Deutsch • ‎English • ‎Türkçe • ‎català • ‎español • ‎italiano • ‎polski • ‎português do Brasil • ‎suomi • ‎svenska • ‎Ελληνικά • ‎русский • ‎српски / srpski • ‎українська • ‎العربية • ‎فارسی • ‎नेपाली • ‎हिन्दी • ‎বাংলা • ‎ગુજરાતી • ‎中文 • ‎日本語 • ‎한국어
সর্বজনীন আচরণবিধি



আলোচনা-পরামর্শ

১. অন্তর্বর্তীকালীন বৈশ্বিক পরিষদের মতো অন্যান্য আন্দোলনের কৌশলগত পদক্ষেপগুলোর সাথে সর্বজনীন আচরণবিধি কীভাবে সম্পর্কযুক্ত?
সর্বজনীন আচরণবিধি উইকিমিডিয়া ২০৩০ বিষয়ক সম্প্রদায়ের সাথে আলোচনা ও কৌশল প্রক্রিয়া থেকে উদ্ভুত অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি পদক্ষেপ। আন্দোলন কৌশল থেকে প্রাপ্ত সুপারিশগুলোর মধ্যে তৃতীয় সুপারিশটি ছিলো সম্প্রদায়ের মধ্যে নিরাপত্তা ও অন্তর্ভুক্তি নিশ্চিত করা এবং একটি আচরণবিধি তৈরি করা ছিলো এই সুপারিশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। আচরণবিধি সংক্রান্ত আলোচনা-পরামর্শের পাশাপাশি সমান তালে অন্যান্য আন্দোলন কৌশল পদক্ষেপগুলোর ব্যাপারে বৈশ্বিক আলাপ চলমান রয়েছে, যার মধ্যে অন্তর্বতীকালী বৈশ্বিক পরিষদও অন্তর্ভুক্ত।
২. কীসের উপর ভিত্তি করে স্থানীয় আলোচনার জন্য সম্প্রদায়গুলোকে বাছাই করা হয়েছিলো?
১ম ধাপের আলোচনার জন্য ভাষাভিত্তিক সম্প্রদায়গুলো কয়েকটি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে বাছাই করা হয়েছিলো, যার মধ্যে সম্প্রদায়ের বৃদ্ধির হার এবং তাদের স্থানীয় আচরণবিধি সংক্রান্ত নীতিমালাও ছিলো। ১ম ধাপের প্রক্রিয়ার বিষয়ে আরও তথ্য এখানে পাওয়া যাবে। এছাড়াও আলোচনা সমন্বয়ের জন্য স্থানীয় ভাষার সমন্বয়ক পাওয়ার বিষয়টিও এর একটি কারণ ছিলো।
১ম ধাপের মতো ২য় ধাপেও সম্প্রদায় বাছাইয়ের ক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয়কে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে প্রথমটি ছিলো, বিভিন্ন ভাষার উইকিমিডিয়া প্রকল্পের স্থানীয় নীতিমালার পাশাপাশি তাদের নীতিমালা কার্যকর করা অবকাঠামোগত অবস্থান-ভিত্তিক তথ্য-উপাত্ত। আলোচনার সমন্বকদের বাছাই করার ক্ষেত্রেও নীতিমালার প্রয়োগের বিভিন্ন মাত্রার চর্চার বিষয়টি বিবেচনায় আনা হয়েছে যেনো বিভিন্ন ধরনের প্রেক্ষাপট বিবেচনা করা যায়। এছাও প্রথম ধাপের মতোই দ্বিতীয় ধাপেও সমন্বয়ক প্রাপ্তি ও তাদের প্রশস্ত ভৌগলিক আওতা যেনো নিশ্চিত করা সম্ভব হয় তা বিবেচনায় আনা হয়েছে।
৩. উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন কি এটি ঘোষণা করেছে যে সর্বজনীন আচরণবিধি উইকিমিডিয়ার সকল প্রকল্প ও স্থানে প্রযোজ্য হবে?
হ্যাঁ। যেহেতু সর্বজনীন আচরণবধি ব্যবহারের শর্তাবলীর একটি অংশ, তাই কোনো বৈশ্বিক নীতি থেকে এককভাবে কোনো সম্প্রদায়ের এর আওতা থেকে বেরিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। যদি স্থানীয় নীতিমালা বা চর্চা কোনো কারণে এই আচরণবিধির সাথে সাংঘর্ষিক হয়, সেক্ষেত্রে সেই উদ্বেগসমূহ আলোচনার প্রক্রিয়ার শুরুতেই দ্রুততার সাথে সামনে আনা প্রয়োজন যেনো সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও সমাধা করা সম্ভব হয়। ২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ অনুসারে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের বোর্ড অব ট্রাস্টিজ একটি নীতিমালা হিসেবে এটিকে অনুমোদ করেছে যা সকল উইকিমিডিয়া প্রকল্পে ও উইকিমিডিয়া আন্দোলনের সকল ক্ষেত্রে আরোপিত হবে। এই আওতার বিষয়টি ১ম ধাপের আলোচনা থেকে খসড়া নীতিমালা পর্যন্ত সকল স্থানেই থেকেই বিভিন্ন সময়ে, বিভিন্ন স্থানে পরিষ্কার করা হয়েছে যার মধ্যে মেটা-উইকি, উইকিমিডিয়ার প্রাথমিক মেইলিং লিস্ট, এবং স্বতন্ত্র প্রকল্পও রয়েছে। ছোট ও মধ্যম-আকারের প্রকল্পগুলোতে এ বিষয়ক ঘোষণার একটি তালিকা এই পাতায় পাওয়া যাবে। তুলনামূলকভাবে বড় উইকিগুলোতে আলোচনার বিষয়ে এখানে বিস্তারিত জানা যাবে।

অনুবাদ

৪. সর্বজনীন আচরণবিধি ও এর সহায়ক নথিপত্রগুলো কি সকল ভাষায় সহজলভ্য হবে?
সর্বজনীন আচরণবিধির প্রকল্প দল সকল গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট ও ঘোষণা প্রতিষ্ঠান ও স্বেচ্ছাসেবীদের সমন্বয়ে যতো বেশি সম্ভব ভাষায় অনুবাদ করার বিষয়ে কাজ করবে। এটি একটি সুবিশাল প্রচেষ্টা যা করতে প্রচুর সময়ের প্রয়োজন হয়, এবং আমরা একা এটি করতে পারবো না। যেসকল স্বেচ্ছাসেবীরা অন্য ভাষায় অনুবাদ করতে চান, বা নতুন কোনো ভাষায় অনুবাদ সহজলভ্য করতে চান, তারা ইমেইল করতে পারেন। আপনি বর্তমানে আমাদের স্বেচ্ছাসেবীদের অনুবাদের প্রচেষ্টা দেখতে পারেন এবং নিজেও অনুবাদে অংশ নিতে পারেন। যদিও সকল বিষয়বস্তু সকল ভাষায় অনুবাদ করা সম্ভব নয়, তবে আমরা ২য় ধাপের আলোচনায় বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদের বিষয়ে বড়ো পরিসরে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে চাই।
৫. অনুবাদে গড়মিল বা ত্রুটিযুক্ত সাংঘর্ষিক অনুবাদের ক্ষেত্রে কোন ভাষার সংস্করণকে আনুষ্ঠানিক সংস্করণ হিসেবে বিবেচনা করা হবে?
সর্বজনীন আচরণবিধির প্রকল্প দল যতো বেশি সম্ভব ভাষায় সর্বজনীন আচরণবিধির খসড়াটি অনুবাদ করার চেষ্টা করে চলেছে। তবে অনুবাদগুলো নিখুঁত নয়, এবং আমরা বিভিন্ন কৌশল (পেশাদার অনুবাদ সংস্থা, স্বেচ্ছাসেবী, স্টাফ, ইত্যাদি) অবলম্বন করে এই অনুবাদগুলো সম্পূর্ণ করার চেষ্টা চালাচ্ছি। অনুবাদের যথার্থতার ক্ষেত্রে এই কৌশলগুলোরও নিজস্ব চ্যালেঞ্জ রয়েছে। আমরা বিভিন্ন সম্প্রদায়কে কোনো ধরনের ভুল বা গড়মিল খুঁজে বের করতে ও ঠিক করতে আহবান জানাই, এবং একই সঙ্গে এটি বোঝার অনুরোধ জানাই যে এসকল গড়মিল ঠিক করতে সময়ের প্রয়োজন। এই কর্মপ্রক্রিয়া শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত ইংরেজি সংস্করণটি-ই এই নীতিমালার প্রাতিষ্ঠানিক সংস্করণ।

প্রয়োগ

৬. সর্বজনীন আচরণবিধি প্রয়োগের ক্ষেত্রে পরিকল্পনাগুলো কি কি, উদাহরণস্বরূপ এর প্রয়োগ নিশ্চিতকল্পের দায়িত্বে কে থাকবেন?
উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের বোর্ড অব ট্রাস্টির (বোর্ড) নির্দেশনা অনুসারে এই নীতিমালার প্রয়োগ কার্যক্রমন এই পুরো পরিকল্পনার ২য় ধাপের অন্তর্ভুক্ত, যা ২ ফেব্রুয়ারি সর্বজনীন আচরণবিধি বোর্ড কর্তৃক সর্বশেষ খসড়া নীতিমালা সংস্করণ অনুমোদনের পর শুরু হয়েছে। এর অর্থ হচ্ছে উইকিমিডিয়া সম্প্রদায় এটি ঠিক করবে যে কীভাবে সর্বজনীন আচরণবিধি স্থানীয় প্রকল্পে প্রয়োগ, ব্যাখ্যা, ও কার্যকর করা সম্ভব হয়। এই নীতিমালা দ্বারা প্রভাবান্বিত হয় এমন সকল ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, বা সম্প্রদায়কে তাই এই সংক্রান্ত আলোচনায় সক্রিয়ভাবে অংশ নিতে আহবান জানানো হচ্ছে যেনো তারা আলোচনার মাধ্যমে সম্প্রদায়ের বর্তমান চর্চা, নীতিমালা, এবং প্রক্রিয়ার সাথে সামঞ্জস্যতা আনতে পারেন। সবশেষে, সর্বজনীন আচরণবিধি ও এর প্রয়োগের কৌশলের উদ্দেশ্য হচ্ছে উইকিমিডিয়া আন্দোলনের সকল অংশে একটি ভিত্তিমূলক নির্দেশাবলী হিসেবে অবস্থান নিশ্চিত করা, আর তাই এই প্রচেষ্টার উপর ভিত্তি করে সম্প্রদায়কে নিজস্ব আচরণগত নীতিমালার তৈরির জন্য উৎসাহ প্রদান করা হচ্ছে।
৭. বাস্তব জীবনে সর্বজনীন আচরণবিধির লঙ্ঘন কীভাবে মোকাবেলা করা হবে? উদাহরণস্বরূপ, ফাউন্ডেশন বা উইকিমিডিয়া অ্যাফিলিয়েট কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানগুলোতে, যেখানে বন্ধুত্বপূর্ণ স্থান নীতিমালাও প্রযোজ্য হয়? এক্ষেত্রে কোন নীতিমালা প্রাধান্য পাবে?
যেহেতু সর্বজনীন আচরণবিধি একটি ন্যূনতম আচরণগত নির্দেশাবলী প্রদান করে, এজন্য স্থানীয় নীতিমালার বিষয়ে আগে বিবেচনা করার ব্যাপারে ও তা প্রয়োগের ব্যাপারে উৎসাহিত করা হচ্ছে। এটি সকল অনুষ্ঠানের জন্যও প্রযোজ্য যেমনটি এটি উইকিমিডিয়ার সকল প্রকল্পে আচরণগত বিষয়ের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। সর্বজনীন আচরণবিধি শুধুমাত্র সে সকল ক্ষেত্রে প্রয়োগের জন্য তৈরি করা হয়েছে যেসকল ক্ষেত্রে স্থানীয় নীতিমালা বা প্রয়োগ পদ্ধতি আলোচ্য ঘটনা বা সমস্যাটি সমাধান করার ক্ষেত্রে যথেষ্ট নয়।
৮. সর্বজনীন আচরণবিধি লঙ্ঘনের অপ্রকাশ্য প্রতিবেদন কি উইকিমিডিয়া সম্প্রদায়ের উন্মুক্ত ও স্বচ্ছ সংস্কৃতির (যেমন, যেখানে সবাই পাতার ইতিহাস দেখতে পারেন) বিরূদ্ধচারণ হবে?
It is already the case that reports are accepted in private for a number of reasons, such as those that require the disclosure or suppression of personally-identifying information, threats of harm, and other sensitive issues. Such reports are regularly submitted to Trust and Safety/Legal, Stewards, CheckUsers, Oversighters, Arbitration Committees, and other functionaries. A significant number of participants have expressed reluctance to report harassment in public venues, as this may result in further hostility. An important consideration in Phase 2 will be exploring the need to balance transparency with the duty to protect victims of harassment.
৯. যারা সর্বজনীন আচরণবিধি প্রয়োগের দায়িত্বে থাকবেন তাদেরকে ফাউন্ডেশন কি ধরনের সহযোগিতা করতে পারে?
The Foundation is committed to supporting the UCoC through all stages of its development: policy drafting, consultations on enforcement, and then ensuring enforcement pathways operate well. There are already some steps being taken to make sure the implementation of the UCoC is successful. This includes providing support for those who could be responsible for enforcing the UCoC. For example, the Foundation’s Community Development team has launched online training pilot programs. As we better understand community needs through our Phase 2 consultations, we will have a better understanding of the types of support to prioritize.

পর্যাবৃত্ত পর্যালোচনা

১০. সর্বজনীন আচরণবিধি চূড়ান্ত হ্‌ওয়ার পর কি এর পর্যাবৃত্ত পর্যালোচনা ও সংশোধন হবে? যদি হ্যাঁ হয়, তবে কে এই কাজের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত হবেন?
হ্যাঁ। ফাউন্ডেশনের আইন বিভাগ সর্বজনীন আচরণবিধির বোর্ড দ্বারা অনুমোদিত সংস্করণটি অনুমোদন হওয়ার এক বছর পূর্ণ করার পর পুনরায় এটি পর্যালোচনা আয়োজন করবে। এ সংক্রান্ত পর্যালোচনা উইকিমিডিয়া আন্দোলনের কৌশলগত প্রক্রিয়ার নির্দেশনা অনুসারে সৃষ্ট কোনো পরিচালনা কাঠামোর মাধ্যমে পরিচালিত হতে পারে।
১১. ভবিষ্যতে জরুরি কোনো পরিবর্তনের প্রয়োজনে হলে কারা এই নীতিমালাটি পর্যালোচনা করবেন?
ফাউন্ডেশনের পূর্বে পরিচালনা করা অন্যান্য নীতিমালার মত এই নীতিমালাতেও যদি কোন পরিবর্তন করতে হয় তাহলে সম্প্রদায়ের ঐক্যমত প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর আইন বিভাগের কাছে অনুরোধ করতে হবে। উল্লেখ্য, আইন বিভাগ এর পূর্বেও এ ধরণের নীতিমালাগুলো সম্প্রদায়ের সাথে কাজ করে তৈরি করেছে যার মধ্যে রয়েছে (২০১৪ সালের অর্থের বিনিময়ে সম্পাদনা নীতির পরিবর্তন)।

স্থানীয় নীতিমালার সাথে সংঘর্ষ

১২. স্থানীয় নীতিমালা যদি সর্বজনীন আচরণবিধির সাথে সাংঘর্ষিক হয় তাহলে কী ঘটবে?
সর্বজনীন আচরণবিধি ফাউন্ডেশন বোর্ড কর্তৃক পাশের পর স্থানীয় সম্প্রদায়কে তাদের স্থানীয় নীতিমালাগুলো পর্যালোচনা করে দেখা ও সর্বজনীন আচরণবিধি অনুসারে সংশোধন বা পরিমার্জনের আহ্ববান জানানো হবে। তাঁরা চাইলে এ নীতিমালাকে আরও ব্যাখ্যামূলক করতে পারে তবে স্থানীয় সম্প্রদায়কে এটি নিশ্চিত করতে হবে যে স্থানীয় নীতিমালা ও নির্দেশাবলী যেনো কোনোভাবেই সর্বজনীন আচরণবিধির ভিত্তিমূলক আদর্শের নিচে না যায়। যদি প্রয়োজন হয় তবে সম্প্রদায়ের সাথে ফাউন্ডেশনও এ বিষয়ে সবসময় সম্প্রদায়ের সাথে সমন্বয়ের কাজ করবে। প্রকল্প শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত ফাউন্ডেশন এ বিষয়ে কাজ সম্প্রদায়ের সাথে কাজ করবে।
১৩. যেসকল প্রকল্পে ইতোমধ্যেই এ ধরনের স্থানীয় নীতিমালা ও নির্দেশাবলী রয়েছে সেখানেও কি সর্বজনীন আচরণবিধি প্রযোজ্য হবে?
সর্বজনীন আচরণবিধির উদ্দেশ্য হচ্ছে আন্দোলনের ব্যপ্তি জুড়ে অত্যন্ত ভিত্তিমূলক একটি আচরণগত আদর্শ তৈরি ও নির্দেশ করা। যে-সকল প্রকল্পে ইতোমধ্যেই যথেষ্ট উন্নত ও বিশদ নীতিমালা রয়েছে তাদের সকল ক্ষেত্রেই নীতিমালা-নির্দেশনাগুলো সর্বজনীন আচরণবিধির প্রত্যাশা পূরণ ও অনেক ক্ষেত্রে তা ছাড়িয়ে গেছে। সেসকল ক্ষেত্রে সাধারণত বৈশ্বিক নীতির সাথে মিলিয়ে বর্তমান নীতিমালায় কোনো পরিবর্তন আনার প্রয়োজন নেই।
১৪. প্রত্যেক উইকিমিডিয়া প্রকল্পে নিজস্ব আচরণগত নীতিমালা ও নির্দেশাবলী রয়েছে যা সে প্রকল্পের প্রয়োজন অনুসারে ব্যবহারকারীদের কর্তৃক লিখিত। সর্বজনীন আচরণবিধি কি এই নীতিমালা ও নির্দেশাবলীগুলোর পরিবর্তন ঘটাবে?
কোনো স্থানীয় প্রকল্পে বর্তমানে রয়েছে এমন কার্যকর কোনো আচরণগত নির্দেশনাকে প্রতিস্থাপন করা সর্বজনীন আচরণবিধির উদ্দেশ্য নয়। বরং সর্বজনীন আচরণবিধি তৈরি করা হয়েছে সকল প্রকল্পের জন্য একটি ভিত্তিমূলক আচরণগত নির্দেশনা তৈরির উদ্দেশ্যে, বিশেষ করে সেকল প্রকল্পের জন্য যাদের স্বল্প মাত্রার বা কোনো আচরণত নীতিমালা নেই। সকল সম্প্রদায় সর্বজনীন আচরণবিধির উপর ভিত্তি করে আরও সাংস্কৃতিকভাবে গ্রহণযোগ্য মানদণ্ড তৈরি করতে বা বর্তমানে থাকা নির্দেশাবলী আরও উন্নত করতে পারে।
১৫. কী হবে যদি সর্বজনীন আচরণবিধি সম্প্রদায়ের ১০০% প্রয়োজন নিশ্চিত না করে?
The UCoC will most certainly not meet all community needs. Also, the UCoC is very likely to evolve in the future. Communities are encouraged to build their own policies on top of it. For example, the UCoC may say, “You should focus on what is best not only for you as an individual editor, but also for the Wikimedia community as a whole.” This is very broad. Many Wikimedia projects already have much more detailed policies on how to handle issues like this, such as Conflicts of Interest. If your project does not have one, such a sentence in the UCoC would be the fallback rule for any conflicts arising on this topic. But the UCoC could also be a good reminder to develop a more detailed policy around this or other topics.
১৬. সর্বজনীন আচরণবিধি কীভাবে সকল সংস্কৃতির সাথে খাপ খাবে?
The UCoC may not fit into all cultural contexts, but the drafters have worked to make it as inclusive as possible. The UCoC team did outreach to communities with different cultures and took their feedback. The drafting committee considered those inputs while creating the draft. If you see more cultural gaps in the draft, kindly bring that to our attention on the main talk page of the Universal Code of Conduct, and these issues may be included in the first or subsequent annual reviews.

ব্যবহারের শর্তাবলীর সাথে অনাবশ্যকতা

১৭. সর্বজনীন আচরণবিধির কি আদৌ প্রয়োজন রয়েছে যেখানে ব্যবহারের শর্তাবলীর ৪র্থ ধারায় “সুনির্দিষ্ট কিছু কার্যক্রম থেকে বিরত থাকা”-এর মতো আচরণগত নীতিমালা যুক্ত রয়েছে?
উইকিমিডিয়ার ওয়েবসাইটগুলো ব্যবহারের শর্তাবলীর ৪ নং ধারায় বেশ কিছু আচরণগত কার্যক্রম থেকে দূরে থাকতে বলা হয়েছে যেমন, কপিরাইট লঙ্ঘন, অর্থের বিনিময়ে সম্পাদনা প্রভৃতি। কিন্তু এটি একটি সুগঠিত তালিকা নয়। সর্বজনীন আচরণবিধি সম্প্রদায়কে আচরণগত প্রত্যাশাগুলোকে আরও বিশদভাবে ব্যাখ্যা করেছে যেনো ওয়েবসাইট ব্যবহারের শর্তাবলীর ৪র্থ ধারাকে আরও ভালোভাবে প্রয়োগে সম্প্রদায়কে সহায়তা করে।
১৮. কেনো আমরা ব্যবহারের শর্তাবলীর ৪র্থ ধারাটি পুনর্লিখন না করে নতুন একটি সর্বজনীন আচরণবিধি তৈরি করেছি?
ব্যবহারের শর্তবলিটি সংক্ষিপ্ত ও সহজে পড়ার জন্য বেশ কিছু বিষয় সেখান থেকে আলাদা করে নতুন নথি তৈরি করা হয়েছে। যেমন, কমিরাইট নীতিমালা, কমন্সের কপিরাইট নীতিমালা প্রভৃতি। ব্যবহারের শর্তাবলির সাথে একমত হওয়া মানে উক্ত নীতিমালাগুলোতেও সম্মত হওয়া। সর্বজনীন আচরণবিধি আলাদা করা তৈরির ফলে এখানে আরও বিস্তারিতভাবে ব্যাখ্যা করা সম্ভব ও সুযোগ তৈরি হয়েছে। সেই সাথে সম্প্রদায়ের প্রয়োজনের ভিত্তিতে এটি হালনাগাদ করাও সহজ হবে।

উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের সংশ্লিষ্টতা

১৯. উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন কেনো এই নীতিমালা প্রণয়নের সাথে যুক্ত?
উইকিমিডিয়া বোর্ড অব ট্রাস্টি ফাউন্ডেশনকে এ প্রকল্পে সম্প্রদায়কে সহায়তা করার জন্য বলা হয়েছে। কৌশলগত আলোচনার সময় সম্প্রদায়ের মতামতের উপর ভিত্তি করে স্বেচ্ছাসেবক ও স্টাফদের সমন্বয়ে গঠিত খসড়া প্রণয়নকারী দল এই খসড়া তৈরি করেছেন।
২০. যদি কেউ সর্বজনীন আচরণবিধি লঙ্ঘন করেন, তবে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন কর্তৃক ‘সত্যিকার অর্থে’ কী পদক্ষেপ নেওয়া হতে পারে?
এই আচরণবিধির লঙ্ঘন বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন কর্তৃক কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে না। বরং এগুলো স্থানীয় সম্প্রদায় বা বৈশ্বিক উচ্চ অধিকারপ্রাপ্ত ব্যবহাকারীরা এ বিষয়গুলো দেখবেন ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন। উল্লেখ্য, ব্যবহারের শর্তাবলী লঙ্ঘনের ক্ষেত্রেও বর্তমানে একই ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়। সর্বজনীন আচরণবিধির প্রয়োগের বিষয়ে ২য় ধাপে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে, যা বোর্ড কর্তৃক নীতিমালা অনুমোদিত হওয়ার পর শুরু হবে।
২১. সর্বজনীন আচরণবিধি নিয়ে মেটা-উইকিতে কি কোনো ভোট অনুষ্ঠিত হবে?
সর্বজনীন আচরণবিধি প্রয়োগের আগে মেটা-উইকিতে এ সংক্রান্ত কোনো ভোটগ্রহণের পরিকল্পনা উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের নেই। কারণ উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন বিশ্বাস করে যে উইকিমিডিয়া সম্প্রদায়ের কাছ থেকেই এ সংক্রান্ত একটি নীতিমালা তৈরি ও প্রয়োগের অনুরোধ এসেছে। আন্দোলনের কৌশলের নির্দেশনাগুলো এ বিষয়ে জোর দিয়েছে যে উইকিমিডিয়া প্রকল্পগুলোতে হয়রানি রোধে ও তা মোকাবেলা করার জন্য আরও কাজ করা প্রয়োজন। বিশেষ করে ছোট প্রকল্পগুলোতে এটি আরও বেশি জরুরি যেখানে এ সংক্রান্তি নীতিমালা ও প্রয়োগ পদ্ধতি যথেষ্ট নয় বা উন্নত নয়। যদিও উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন সকল উইকিমিডিয়া প্রকল্পে সর্বজনীন আচরণবিধি প্রয়োগ করতে চায়, তবে যে সকল প্রকল্পে ইতোমধ্যেই সম্প্রদায় কর্তৃক শক্ত-সমর্থ পরিচালনা প্রক্রিয়া ও কার্যকর বিবাদ নিরসন প্রক্রিয়া রয়েছে, সেসকল ক্ষেত্রে স্থানীয় নীতিমালা ও চর্চায় কোনো গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন সর্বজনীন আচরণবিধি আনবে না বলেই আশা করা হচ্ছে।